Subject Notes

স্বরাজ্যদল

Advertisements

স্বরাজ্যদলের উৎপত্তির কারণ:

গান্ধিজির অসহয়ােগ আন্দোলন প্রত্যাহারের পর আইনসভানির্বাচনে কংগ্রেস দলের অংশগ্রহণকে কেন্দ্র করে কংগ্রেসের মধ্যে মতবিরােধের ফলে দেশবন্ধু ১৯২৩ খ্রিস্টাব্দের ১লা জানুয়ারি কংগ্রেসের অভ্যন্তরেই কংগ্রেস খিলাফৎ স্বরাজ্য দল’নামে একটি অন্য দলের প্রতিষ্ঠা করেন, যা পরবর্তীকালে স্বরাজ্য দল নামে পরিচিত হয়। দেশবন্ধু চিত্তরঞ্জন দাশ এই নবগঠিত দলের সভাপতি এবং মতিলাল নেহরু সাধারণ সম্পাদক নিযুক্ত হন। বাংলার বিপ্লবীরা, বিশেষ করে যুগান্তর গােষ্ঠী এই দলকে সমর্থন জানান।

স্বরাজ্য দলের মূল উদ্দেশ্য ও কর্মসূচি :

স্বরাজ্য দলের মূল উদ্দেশ্য ছিল ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের অন্তর্ভুক্ত থেকে স্বায়ত্ত শাসনের অধিকার লাভ করা।[৩] সাফল্য : ১৯২৩ খ্রিস্টাব্দের সাধারণ নির্বাচনে স্বরাজ্য দল আশাতীত সাফল্য লাভ করে বাংলা ও মধ্যপ্রদেশে এই দলের সাফল্য ছিল সবচেয়ে বেশি। এছাড়া কলকাতা কর্পোরেশনে স্বরাজ্য দল জয়লাভ করে এবং চিত্তরঞ্জন দাশ কলকাতা কর্পোরেশনের প্রথম মেয়র নির্বাচিত হন।

ব্যর্থতার কারণ :

স্বরাজ্য দলের আপাত সাফল্য সত্বেও এই দলের পক্ষে স্থায়িত্বলাভ সম্ভ হয়নি। স্বরাজ্যদলের ব্যর্থতার বিভিন্ন কারণ ছিল, যেমন : প্রথমত, দলের প্রধান স্তম্ভ দেশবন্ধু চিত্তরঞ্জন দাশের আকস্মিক প্রয়াণ। তাঁর মৃত্যুর (১৯২৫ খ্রিঃ ১৬ই জুন) পর স্বরাজ্য দলের নেতৃত্ব গ্রহণের উপযুক্ত বিচক্ষণ নেতা ছিলেন না। দ্বিতীয়ত, ব্রিটিশ সরকারের কঠোর দমন নীতি স্বরাজ্য দলের ব্যর্থতার অন্যতম দেশবন্ধু চিত্তরঞ্জন দাশ প্রধান কারণ হয়ে ওঠে। কিন্তু নানান ব্যর্থতা সত্ত্বেও ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামে স্বরাজ্য দলের অবদানকে অস্বীকার করা যায় না, কারণ স্বরাজ্য দলের ধারাবাহিক আক্রমণ ও দাবিদাওয়ার ফল হিসেবে ব্রিটিশ সরকার সাইমন কমিশন গঠন করতে বাধ্য হয়।

Advertisements
Advertisements
Button
WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now
Instagram Group Join Now